অপশ্রুতি ও সম্প্রসারণ

অভিশ্রুতি

ক্রিয়ামূল বা শব্দমূলের সাথে প্রত্যয় যুক্ত হলে ধাতু বা শব্দের মধ্যে কোন কোন ক্ষেত্রে স্বরাগত কিছু পরিবর্তন ঘটে, এই পরিবর্তনকে অপশ্রুতি বলে। 

অপশ্রুতি তিন ভাবে গঠিত হয় যেমন- গুণ, বৃদ্ধি ও সম্প্রসারণ।

 

গুন

ই, ঈ এর স্থানে এ হয়, যেমন-

√চিন্ + আ = চেনা

√নী + আ = নেওয়া

√দ্বিষ + ষ্ণ = দ্বেষ

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে ই, ঈ থাকলে কৃদন্তপদ বা তদ্ধিতান্তপদে তা “এ” হয়।

উ, ঊ এর স্থানে ও হয়, যেমন-

ধু + আ = ধোয়া,

√মুদ + অক্ = মোদক

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে উ, ঊ থাকলে কৃদন্ত পদ বা তদ্ধিতান্ত পদে তা “ও” হয়।

ঋ এর স্থানে অর হয়, যেমন-

√কৃ + তা = কর্তা

√কৃ + অন = করণ

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে ঋ থাকলে কৃদন্তপদ অথবা তদ্ধিতান্ত পদে তা “অর” হবে।

 

বৃদ্ধি

ই, ঈ এর স্থানে ঐ হয়, যেমন-

শিশু + অ = শৈশব

নিশা + অ = নৈশ

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে ই, ঈ থাকলে কৃদন্তপদ বা তদ্ধিতান্তপদে তা “ঐ” হয়।

উ, ঊ এর স্থানে ঔ হয়, যেমন-

যুব + অন = যৌবন

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে উ, ঊ থাকলে কৃদন্ত পদ বা তদ্ধিতান্ত পদে তা “ঔ” হয়।

ঋ এর স্থানে আর হয়, যেমন-

স্মৃতি + আ = স্মারক

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে ঋ থাকলে কৃদন্তপদ অথবা তদ্ধিতান্ত পদে তা “আর” হবে।

অ এর স্থানে আ হয়, যেমন-

পচ + অক = পাচক

অর্থাৎ, ধাতুর প্রথম বর্ণে অ থাকলে কৃদন্তপদ অথবা তদ্ধিতান্ত পদে তা “আ” হবে।

 

সম্প্রসারণ

সম্প্রসারণের তিনটি নিয়ম আছে-

১. ব এর স্থানে উ হয়

√বচ + ত = উক্ত

২. র এর স্থানে ঋ হয়

√গ্রহ্ + ত = গৃহীত

৩. য এর স্থানে ই হয়

√যজ্ + তি = ইষ্টি

পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শত শত ভিডিও ক্লাস বিনামূল্যে করতে জয়েন করুন আমাদের Youtube চ্যানেলে-

www.youtube.com/crushschool

ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published.