ত্বরণ (Acceleration)

কোন বস্তু যদি সুষম বেগে না চলে তাহলে বস্তুর বেগের মানের কিংবা দিকের বা উভয়ের পরিবর্তন হতে পারে। বস্তুর বেগের পরিবর্তন হলে আমরা বলি ত্বরণ হচ্ছে।

সময়ের সাথে বস্তুর অসম বেগের পরিবর্তনের হারকে ত্বরণ বলে।

কোনো বস্তুর আদিবেগ যদি u হয় এবং t সময় পরে তার শেষ বেগ যদি v হয় তাহলে t সময়ে বেগের পরিবর্তন = v – u
তাহলে, একক সময়ে বেগের পরিবর্তন হবে = (v – u) / t
অতএব ত্বরণ হচ্ছে একক সময়ে বেগের পরিবর্তের হার, অর্থাৎ a = (v – u) / t
 
সুতরাং ত্বরণ = বেগের পরিবর্তন / সময়
 
সরল পথে চলমান বস্তুর সময়ের সাথে বেগ বৃদ্ধির হারকে ধনাত্মক ত্বরণ এবং সময়ের সাথে বস্তুর বেগ হ্রাসের হারকে ঋণাত্মক ত্বরণ ধরা হয়। অনেক সময় ঋণাত্মক ত্বরণ কে মন্দন (retardation) বলা হয়।

ত্বরণের মাত্রা হল বেগ/সময় এর মাত্রা, অর্থাৎ-
  ত্বরণ = বেগ/ সময়
         = সরণ/(সময়*সময়)
         = সরণ/সময়2
 
   [a] = [L/T2]
          = [LT-2]

ত্বরণ এর একক হলো বেগ/সময় এর একক। অর্থাৎ- ms-1/s বা ms-2

কোনো বস্তুর ত্বরণ 6 ms-2 দক্ষিণ দিকে বলতে বোঝায় বস্তুটির বেগ দক্ষিণ দিকে 1s এ 6ms-1 বৃদ্ধি পায়।
 
ত্বরণ দু রকমের হতে পারে- সুষম ত্বরণ ও অসম ত্বরণ।
 
সুষম ত্বরণ: কোন বস্তুর বেগ যদি নির্দিষ্ট দিকে সবসময় একই হারে বাড়তে থাকে তাহলে সেই ত্বরণকে সুষম ত্বরণ বলে।
 
অসম ত্বরণ: বেগ বৃদ্ধির হার যদি সমান না থাকে, তাহলে সেই ত্বরণকে অসম ত্বরণ বলা হয়।
 
সুষম ত্বরণের একটি উদাহরণ হল অভিকর্ষের প্রভাবে মুক্তভাবে পড়ন্ত বস্তুর ত্বরণ। যদি একটি বস্তু ভূ-পৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়তে থাকে তখন তার ত্বরণ হয় 9.8 ms-2 অর্থাৎ ববস্তুটি যখন ভূ-পৃষ্ঠের দিকে আসতে থাকে তখন এর বেগ প্রতি সেকেন্ডে 9.8 ms-1 করে বাড়তে থাকে।
 
সুষম ত্বরণের একটি উদাহরণ হল অভিকর্যের প্রভাবে মুক্তভাবে পড়ন্ত বস্তুর ত্বরণ। যদি একটি বস্তু ভূপৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়তে থাকে তখন তার ত্বরণ হয় 9.8 ms-2 অর্থাৎ বস্তুটি যখন ভূপৃষ্ঠের দিকে আসতে থাকে তখন এর বেগ প্রতি সেকেন্ডে 9.8 ms-1 করে বাড়তে থাকে। উঁচু থেকে একটি বস্তু ছেড়ে দিলে প্রথম সেকেন্ডে এর বেগ বাড়ে 9.8 ms-1, দ্বিতীয় সেকেন্ডেও এর বেগ বাড়ে 9.8 ms-1। এরূপ প্রতি সেকেন্ডে এর বেগ 9.8 ms-1 করে বাড়তে থাকে। এখানে ভূ-কেন্দ্রের দিকে একই হারে বেগ বাড়তে থাকার জন্য সব সময়ই বস্তুর একই ত্বরণ হচ্ছে, তাই বস্তুটির ত্বরণ সুষম ত্বরণ। ত্বরণের ন্যায় মন্দনও দুরকমের হতে পারে, সম মন্দন ও সুষম মন্দন। খাড়া উপরের দিকে নিক্ষিপ্ত বস্তু সুষম মন্দনে উপরের দিকে উঠতে থাকে। একটি বস্তুকে যখন খাড়া উপরের দিকে নিক্ষেপ করা হয় তখন বস্তু যতক্ষণ উপরের দিকে ওঠতে থাকে ততক্ষণ বস্তুটির একই হারে মন্দন হতে থাকে। এ ক্ষেত্রে বস্তুর বেগ প্রতি সেকেন্ডে 9.8 ms-1 কমতে থাকে।

পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শত শত ভিডিও ক্লাস বিনামূল্যে করতে জয়েন করুন আমাদের Youtube চ্যানেলে-

www.youtube.com/crushschool

ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool

Abdul Mukit Nipun

ex Notre Damian, BUET ME’18. Like to keep connected with the rest of world and believe in humanity.