অ্যামিনো এসিড (Amino Acid)

আমাদের শরীরে যত ধরনের প্রোটিন আছে তার সবটুকু মাত্র ২০ ধরনের Amino Acid এর সমন্বয় গঠিত হয়। এই ২০ ধরনের Amino acid এর সবাই Alpha Amino Acid নামে পরিচিত।

Alpha amino acid নিয়ে জানার আগে Alpha Carbon নিয়ে জানতে হবে। কোনো জৈব যৌগে functional group যুক্ত কার্বনের সাথে অন্য যে কার্বন যুক্ত থাকে সেটাই Alpha Carbon. নিচের ছবিতে দেখো, নীল রং এর কার্বনটি হচ্ছে alpha Carbon-

Alpha Amino acid এর কেন্দ্রে একটা alpha carbon থাকে, যার সাথে একটা কার্বক্সিলিক এসিডের গ্রুপ, একটা Amino গ্রুপ (NH2), একটা Hydrogen এবং একটা Alkyle (R) Group যুক্ত থাকে। Alkyl গ্রুপকে পার্শ্ব শিকল বা Side Chain বলা হয়। এই গ্রুপের পার্থ্যকের জন্য একটা Amino acid থেকে আরেকটা amino acid এর পার্থক্য তৈরি হয়। নিচে একটা Amino acid এর chemical structure দেওয়া হলো-

যেসব কার্বনের সাথে চারটি ভিন্ন গ্রুপ যুক্ত থাকে তাদেরকে Cyral Carbon বলে। কাজেই Amino acid এর Center carbon টি হচ্ছে এক ধরনের cyral carbon. কিন্তু amino acid গুলোর মধ্যে শুধুমাত্র Glycine এর মধ্যে cyral carbon থাকে না। কারন Glysin এর center carbon এর সাথে দুটো Hydrogen দুই দিকে যুক্ত থাকে। তবে Tyrosin এবং Methionine নামক দুটো Amino Acid এর মধ্যে এমনটা দেখা যায় না। নিচের ছবিতে Tyrosin, Glycine এবং Methionine Amino Acid এর chemical structure দেখি-

Amino Acid গুলোর গঠনে এক ধরনের Configuration দেখা যায় যাকে Absolute Configuration বলে। Absolute Configuration দুই ধরনের-Absolute amino acid Rectus Configuration এবংAbsolute amino acid Sinister configurationএই দুটি configuration বলতে বোঝায়, Hydrogen বাদে amino acid এর বাকি তিনটি গ্রুপের দিক বিন্যাস। Cyral carbon বাদে বাকি গ্রুপগুলো হচ্ছে NH2, H এবং COOH গ্রুপ। N এর atomic number বেশি বলে NH3+ গ্রুপকে ১ নাম্বার, COO কে ২ নাম্বার, Alkyl গ্রুপকে ৩ নাম্বার এবং Hydrogen কে ৪ নাম্বার ধরলে আমরা Amino acid এর একটা দিকবিন্যাস পাবো নিচের ছবিটির মত-যদি Hydrogen কে স্থির রেখে বাকি গ্রুপ গুলোকে সাজাই, তবে তারা যদি ঘড়ির কাটার দিক অনুসারে নাম্বারিং অনুসারে সাজে, তবে সেই ফিগারটি হবে amino acid এর Rectus Absolute Configuration. আর ঘড়ির কাটার বিপরীত দিকে যদি নাম্বারিং অনুসারে গ্রুপগুলো বসে তবে সেটা Sinister Absolute Configuration হবে। নিচের ছবিতে দেখো-

Glycine বাদে বাকি ১৯ টি cyral carbon যুক্ত amino acid এর মধ্যে ১৮টি amino acid এর অবস্থান থাকে তাদের sinister absolute amino acid ফরমেটে। Amino Acid এর মধ্যে একইসাথে এসিড গ্রুপ (COOH) এবং ক্ষার গ্রুপ (NH3) থাকে বলে এতে Acid-Base Dipole দেখা যায়। তাই একে Zwitter ion বলে। Amino acid নিজে zwitter ion ফরমেটে থাকার জন্য আমাদের শরীরের বিভিন্ন জায়গার pH এর মান 4 হয়ে থাকে।

তবে যখন আমাদের শরীরের কোনো solution এর pH একদম কমে যায়, প্রায় 1 এর কাছাকাছি হয় তখন Amino acid এর NH3 গ্রুপের +ve charge কাজ করে বলে Amino acid পুরোটা positively charged হয়ে যায়। Solution এর pH যখন 4/5 এর কাছাকাছি থাকে তখন Amino acid Zwitter ion হিসেবে কাজ করে। আবার solution এর pH যখন বেড়ে 9 এর কাছাকাছি হয় তখন Amino acid এর মধ্যে থাকা COOH এর charge কাজ করে, তাই Amino acid তখন negatively charged হয়ে যায়।

Amino acid এর সাথে যুক্ত side chain পরিবর্তন করা হলে পুরো amino acid পরিবর্তিত হয়ে যায়। Side Chain এর পরিবর্তন ঘটে কয়েকটা বিষয়ের উপর ভিত্তি করে। এগুলো হলো-

  • Side Chain এর আকার
  • Side Chain এর গঠন
  • Side Chain এর মধ্যে থাকা Charge এর পরিমাণ
  • Side Chain এর Hydrophilic এবং Hydrophobic ধর্মের উপর ভিত্তি করে

ক্রাশ স্কুলের Youtube চ্যানেলের জয়েন করুন-

www.youtube.com/crushschool

অথিতি লেখক হিসেবে আমাদেরকে আপনার লেখা পাঠাতে চাইলে মেইল করুন-

write@thecrushschool.com

Emtiaz Khan

A person who believes in simplicity. He encourages the people for smart education. He loves to write, design, teach & research about unknown information.

Facebook Comments