অর্থনীতির প্রকারভেদ

সাধারণত অর্থনীতিকে আমরা ২ ভাগে ভাগ করতে পারি-

  1. ব্যাষ্টিক অর্থনীতি (Micro Economics)
  2. সামষ্টিক অর্থনীতি (Macro Economics)

 

ব্যাষ্টিক অর্থনীতি (Micro Economics)

ব্যাষ্টিক অর্থনীতি বা (Micro Economics) এর Micro শব্দটি গ্রিক শব্দ Mikros থেকে আগত। যার অর্থ ক্ষুদ্র। ব্যাষ্টিক অর্থনীতি হচ্ছে সামাজিক বিজ্ঞানের এমন একটি শাখা যা বিভিন্ন একক প্রতিষ্ঠান বা একক ব্যক্তিবর্গের সম্পর্কে অর্থনৈতিক বিষয়ে বিশদভাবে আলোচনা করে। ব্যাষ্টিক অর্থনীতি অর্থব্যবস্থার বিভিন্ন একক তথা ব্যক্তিগত চাহিদা, ভোগ, বিনিয়োগ, সঞ্চয় ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করে। এ ক্ষেত্রে শুধুমাত্র আলাদা আলাদা ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানই গণ্য করা হবে। মাইক্রো ইকোনমিক্স এর একটি লক্ষ্য হলো অর্থনীতির একটি বিশেষ অংশ বা একক ব্যক্তিবর্গের দৃষ্টিকোণ থেকে বিশ্লেষণ করা।

এই ব্যাষ্টিক অর্থনীতিকে অনেকেই বিভিন্ন ভাবে সংজ্ঞায়িত করেছেন, যেমন- Economist K.E bouding বলেন- “Micro Economics is the study of particular firm, particular household firm, individuals incomes and wages, particular industries and particular commodities” এখনে তার সংজ্ঞা এর মধ্যে একটা জিনিস কমন সেটা হচ্ছে Particular. যার মানে হচ্ছে বিশেষ বা একক। তিনি তার সংজ্ঞার মাধ্যমে এটাই বুঝাতে চেয়েছেন যে এই মাইক্রো ইকোনমিক্স হচ্ছে একক ব্যক্তিবর্গ বা একক প্রতিষ্ঠানের অর্থনৈতিক বিষয়াবলী নিয়ে বিশদ আলোচনা।

এছাড়া Economist Eugene Diulio বলেন- “Microeconomics studies the economic behavior of individual decision makers such as consumers, resources owners and business firms” (মাইক্রো ইকোনমিক্স বলতে আলাদা আলাদা অর্থনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী আচরণ, যেমন: ভোক্তা সম্পদের মালিক এবং ব্যবসায়িক ফার্মের অধ্যায়ন বুঝায়)।

জেমস এম হেন্ডারসন ও রিচার্ড ই কোয়ান্ট-এর ভাষায়- “ব্যষ্টিক অর্থনীতি হলো ব্যক্তির এবং সুনির্দিষ্ট ব্যক্তিবর্গের অর্থনৈতিক কার্যাবলির আলোচনা।” তাই আমরা বলতে পারি ব্যাষ্টিক অর্থনীতি বা মাইক্রো ইকোনমিক্স হলো আলাদা আলাদা ব্যক্তিবর্গের আয়, ব্যয়, বিনিয়োগ, ইত্যাদি নিয়ে আলোচনার বিজ্ঞান।

 

সামষ্টিক অর্থনীতি (Macro Economics)

সামষ্টিক অর্থনীতি (Macro Economics) এর Macro শব্দটি গ্রিক শব্দ Makros থেকে আগত যার মানে বড়। সামষ্টিক অর্থনীতিতে কোন বিশেষ ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে সতন্ত্রভাবে আলোচনা না করে দেশের অর্থব্যবথা সামগ্রিকভাবে আলোচনা করে। অর্থাৎ একটি দেশের জাতীয় উৎপাদন বিনিয়োগ ব্যয়, জনগণের মাথাপিছু আয় এবং বেকারত্বের হার নিয়ে আলোচনা করে।

বিভিন্ন অর্থনীতিবিদ এই ম্যাক্রো ইকোনমিক্স কে তাদের নিজের মত করে সংজ্ঞায়িত করেছেন যেমন- Samuelson and Wd Nordhaus বলেছেন- “Macro Economics is the study of the behavior of the economy as a whole” (ম্যাক্রো ইকোনমিক্স সামগ্রিকভাবে একটি দেশের অর্থনৈতিক বৈশিষ্ট্য নিয়ে আলোচনা করে)।

এছাড়া Professor Quant and Handerson বলেছেন- “Micro Economics discuss about overall performance of the economy” (ম্যাক্রো ইকোনমিক্স একটি দেশের সামগ্রিক ক্রিয়া-কলাপ নিয়ে আলোচনা করে)।

Economist Eugene Diulio বলেছেন- “Microeconomics studies aggregate output employment and the general price level” (ম্যাক্রো ইকোনমিক্স বলতে মোট উৎপাদন, কর্মসংস্থান এবং সাধারন মূল্যস্তরের অধ্যয়নকে বুঝায়)।

অধ্যাপক বোল্ডিং এর মতে- “পৃথক পৃথক পরিমাণের পরিবর্তে এদের সমষ্টি, ব্যক্তিগত আয়ের পরিবর্তে জাতীয় আয়, বিভিন্ন দ্রব্যের দামের পরিবর্তে সাধারণ দামস্তর, ব্যক্তিগত উৎপাদনের পরিবর্তে জাতীয় উৎপাদনই হল সামষ্টিক অর্থনীতির প্রতিপাদ্য বিষয়।”

পরিশেষে বলা যায়, অর্থনীতির যে শাখার একটি দেশের অর্থনৈতিক সামগ্রিক আচার, অ়াচরণ নিয়ে বিশ্লেষণ করা হয় তাই ‘সামষ্টিক অর্থনীতি”।

ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool

অতিথি লেখক হিসেবে আমাদেরকে আপনার লেখা পাঠাতে চাইলে মেইল করুন-

write@thecrushschool.com

S.M. Riazul Karim Shishir

Studying in the Department of Economics, Faculty of Social Science, Sheikh Hasina University. A Person Who Believes in Positive Thinking.