ডিএনএ ট্রান্সক্রিপশন (DNA Transcription)

Transcription মানে হলো DNA থেকে RNA তৈরি করার প্রক্রিয়া। বিশেষ করে RNA টা হয় mRNA. আবার DNA এর সব অংশই কিন্তু RNA বানায় না। শুধুমাত্র যেসব অংশগুলো RNA বানায় তাদের জিন (gene) বলি আমরা।

Transcription ঘটানোর জন্য একটা এনজাইমের দরকার হয়। এনজাইমটার নাম হচ্ছে RNA polymares (RNAP). RNAP এর কাজই হলো সে একটা DNA কিংবা Gene থেকে RNA বানাবে। আমরা আগে থেকে জানি যে একটা Gene এর ৩ টা অংশ থাকে।

1) Promoter,

2) Coding Region এবং

3) Terminator

এখন Transcription এর শুরুতে RNAP এনজাইমটা Promotor এ গিয়ে সুইচ অন করে দেয়। তারপর RNAP এনজাইম Gene এর ভেতর ঢুকে Coding Region এর দিকে চলে যায়। সেখানে সে শুধুমাত্র DNA এর একটা সুতাকে দেখে দেখে এক সুতার RNA তৈরি করতে থাকে। সুতা তৈরির ক্ষেত্রে A এর বিপরীতে T, C এর বিপরীতে G এই কোড গুলো অনুসরন করে RNAP এনজাইমটা।

ডিএনএ ট্রান্সক্রিপশন

এখন কথা হলো RNAP এনজাইম DNA এর কোন সুতাকে দেখে RNA কে বানাবে?

RNAP এর একটা মজার বৈশিষ্ট্য আছে। এটি RNA এর সুতা বানায় 5′ প্রান্ত থেকে 3′ প্রান্তের দিকে। অর্থাৎ RNA সুতার শুরুতে পেন্টোজ সুগারের ৫ নাম্বার কার্বনে একটা ফসফেট গ্রুপ থাকে, এবং সুতার শেষে পেন্টোজ সুগারের ৩ নাম্বার কার্বনে একটা একটা হাইড্রক্সিল গ্রুপ থাকে।

ডিএনএ ট্রান্সক্রিপশন

 

তাই যেসব DNA সুতা 3′ থেকে 5′ এর দিকে যায় শুধুমাত্র সেসব সুতাকে দেখে দেখেই RNAP এনজাইম এদের বিপরীত সুতার RNA-কে 5′ থেকে 3′ এর দিকে বানায়।


ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool

অতিথি লেখক হিসেবে আমাদেরকে আপনার লেখা পাঠাতে চাইলে মেইল করুন-

write@thecrushschool.com

Emtiaz Khan

A person who believes in simplicity. He encourages the people for smart education. He loves to write, design, teaching & research about unknown information.