সমবিভব তল (Equipotential Surface)

যে চার্জিত তলের প্রতিটি বিন্দুর বিভব সমান তাকে সমবিভব তল বলে।

একটি বিন্দু চার্জ + q থেকে r দূরত্বের যে কোনো বিন্দুতে তড়িৎ বিভবের রাশিমালা হচ্ছে-

V = (1 / 4πr∈0) (q/r)

এখন q এবং ∈0 এর মান সব সময় একই থাকে বলে বিন্দু চার্জ থেকে যে কোনো দিকে r দূরত্বে বিভব একই হবে। ত্রিমাত্রিক স্থানে r দূরত্বের তল হবে গোলকীয় তল। এ তলের সকল বিন্দুতে বিভব একই হবে। সুতরাং এটি সমবিভব তল। এর বিভিন্ন মানের জন্য আমরা অসংখ্য সমবিভব তল আঁকতে পারি। তবে দ্বিমাত্রিক স্থানে বৃত্ত এঁকে বিভিন্ন সমবিভব তল দেখানো হয়। ঐ বিন্দু চার্জ থেকে সমবিভব তলের দূরত্ব যত বেশি হবে, বিভবের মান তত কম হবে।

যেহেতু একটি সমবিভব তলের সব বিন্দুতে বিভব সমান, ফলে ঐ তলের যে কোনো দুটো বিন্দুর বিভব পার্থক্য শূন্য হবে। আবার, বিভব পার্থক্য শূন্য হলে কাজও শূন্য হবে। তাই কোনো চার্জকে সমবিভব তলের এক বিন্দু হতে অন্য বিন্দুতে নিতে কোনো কাজ করতে হয় না। সমবিভব তলের যে কোনো বিন্দুতে তড়িৎ ক্ষেত্রের প্রাবল্য বা তড়িৎ প্রাবল্য ঐ তলের সাথে লম্বভাবে কাজ করে।

‘তোমরা তার সঙ্গে নম্র ভাষায় কথা বলবে। হয়তো সে উপদেশ গ্রহণ করবে অথবা ভয় পাবে।’ (আল-কুরআন, সূরা : ত্বহা)

পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শত শত ভিডিও ক্লাস বিনামূল্যে করতে জয়েন করুন আমাদের Youtube চ্যানেলে-

www.youtube.com/crushschool

ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published.