অপটিক্যাল ফাইবার যোগাযোগ ব্যবস্থা (Optical Fiber Communication System)

Gigabits (গিগাবিট) বা এর চেয়েও বড় সাইজের কোনো ডেটাকে যদি বহুদূরে পাঠানো হয় তবে সেক্ষেত্রে Fiber optics বা optical fiber হচ্ছে সবচেয়ে ভাল মাধ্যম। অপটিক্যাল ফাইবারের সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, কোনো noise এর সাথে ডেটাকে যুক্ত হয় না করেই এটি প্রায় আলোর গতিতে অনেক বড় বড় সাইজের ডেটাকে অনেক দূরে পাঠাতে পারে। Digital কিংবা Analog যেকোনো ধরনের signal বা data কে light signal-এ রূপান্তর করে অপটিক্যাল ফাইবারের মধ্য দিয়ে চালনা করা হয়। আমরা এবার জানার চেষ্টা করব কিভাবে অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা তৈরি গঠিত হয়।

একটা কপার তার (Copper Wire) এর মধ্য দিয়ে যেকোনো data এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যাওয়ার জন্য ইলেকট্রিক্যাল সিগন্যালের উপর নির্ভর করে। এছাড়া অনেক দীর্ঘপথে যাওয়ার সময় ইলেকট্রিক্যাল সিগন্যাল বিভিন্ন জায়গাতে noise দ্বারা affected হয়। তাই copper wire এর এক প্রান্তে তথ্য বা ইলেকট্রিক্যাল সিগন্যালকে ইনপুট হিসেবে দিলে আরেক প্রান্তে আউটপুট হিসেবে পুরোপুরি বিশুদ্ধ ইলেকট্রিক্যাল সিগন্যাল পাওয়া যায় না। তবে অপটিক্যাল ফাইবার যোগাযোগ ব্যবস্থায় অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে আলো sender terminal থেকে কোনো প্রকার বাঁধা না পেয়ে চলে যেতে পারে receiver terminal-এ। Analog কিংবা Digital যেকোনো data বা signal থাকুক না কেনো, সেটি light signal-এ কনভার্ট হয়ে অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে বহুদূরে আলোর গতিতে তথ্য সরবরাহ করতে পারে এবং receiver terminal-এ সেই light signal পুনরায় analog বা digital signal-এ কনভার্ট হয়ে receiver এর কাছে পৌঁছায়। একটা সম্পূর্ণ Optical Fiber Communication System তিনটা অংশ নিয়ে তৈরি হয়।

1) Transmitter Side

Sender যখন কোনো ডেটা কাউকে পাঠাতে চায় তখন এই optical fiber communication সিস্টেমে কতগুলো ডিভাইসের মাধ্যমে Sender সেই ডেটাকে বহুদূরে পাঠিয়ে দেয়। Transmitter সাইডে মোট তিনটি অংশ থাকে-

i) Encoder / Signal Shaping Circuit

যে Analog signal কে বহুদূরে পাঠানো হয় তাকে information input বলে। Information input কে প্রথমে Encoder নামক একটা ডিভাইসে প্রবেশ করানো হয়। Encoder তখন এই analog signal কে encoding করে বা এর shape কিছুটা পরিবর্তন করে, যাতে সেটি সহজে modulator নামক ডিভাইসে প্রবেশ করতে পারে। এছাড়া এনকোডারে থাকা analog-to-digital converter (A/D converter) ডিভাইস Analog data বা analog signal কে digital data বা digital signal-এ পরিণত করে, যা অনেকগুলো বাইনারি বিট নিয়ে তৈরি।

ii) Modulator / Driver

Encoder থেকে বের হওয়া encoded digital signal এর সাথে carrier signal যুক্ত করার জন্য modulator নামক এক ধরনের ডিভাইস কাজ করে। Modulator থেকে যে signal বের হয় সেটির উপর ভিত্তি করে light source কাজ করে।

iii) Optical Source / Light Source

Modulator থেকে বের হওয়া Encoded এবং Modulated electrical signal এক্ষেত্রে optical source এর মধ্যে প্রবেশ করে। নিকটবর্তী এবং দূরবর্তী স্থানে তথ্য পাঠানোর উপর ভিত্তি করে দুই ধরনের light কে ব্যবহার করা হয় এই light source ডিভাইসে। এরা হচ্ছে-

LASER : Long distance এবং High speed ব্যান্ডউইথে ডেটা পাঠানোর জন্য এটি ব্যবহার করা হয়।

LED (Light Emitting Diode) : Short distance এবং low speed ব্যান্ডউইথে ডেটা পাঠানোর জন্য এটি ব্যবহার করা হয়।

সাধারনত Infrared Ray বা অবলোহিত রশ্মিকে light source হিসেবে ব্যবহার করা হয়, যাদেরকে খালি চোখে দেখা যায় না। সেজন্য অপটিক্যাল ফাইবারের মধ্য দিয়ে আলো যাতায়াত করলে তখন আমরা সেটাকে অনেক সময় দেখতে পাই না।

 

2) Transmission Media / Optical Component

Optical source থেকে light signal একটা transmission media তে প্রবেশ করে, যাকে অপটিক্যাল ফাইবার বলে। Light source থেকে Binary bit আকারে আলো অপটিক্যাল ফাইবারের প্রবেশ করে, যেমন লাইট যখন ON হয় তখন সেটাকে 1 হিসেবে ধরা হয়, লাইট যখন OFF থাকে তখন সেটাকে 0 হিসেবে ধরা হয়। এভাবে একটা নির্দিষ্ট বাইনারি কোড আলোর মাধ্যমে অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে receiver termimal-এ পৌঁছায়।

অপটিক্যাল ফাইবার যোগাযোগ

 

3) Receiver Terminal

Optical fiber দিয়ে আসা sender এর পাঠানো তথ্যগুলোকে গ্রহণ করা হয় receiver terminal এ। এটির তিনটি অংশ থাকে-

i) Optical Detector / Photo Detector

এই ডিভাইসটি অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে আসা optical signal কে electrical signal-এ কনভার্ট করে। সাধারনত দুই ধরনের photo detector ব্যবহার করা হয় এই সিস্টেমে-

  • PN photo diode
  • Avalanche photo diode

ii) Amplifier

Photo detector ডিটেক্টর থেকে আসা electrical signal কে amplifier এর মাধ্যমে তার amplitude বাড়িয়ে সেটাকে Decoder নামক ডিভাইসের মধ্যে পাঠানো হয়।

iii) Decoder

Digital signal সহজে মানুষ বুঝতে পারে না। কেননা সেটি শুধুমাত্র binary bit দিয়ে তৈরি। তাই digital signal কে analog signal-এ পরিবর্তিত করার জন্য Decoder নামক যন্ত্র ব্যবহার করা হয়। আমরা sender terminal দিয়ে যে data প্রবেশ করিয়েছিলাম ঠিক সেই data আউটপুট টার্মিনাল দিয়ে বের হয়ে আসে।

মুমিনগণ, তোমরা অঙ্গীকারসমূহ পূর্ন কর। তোমাদের জন্য চতুষ্পদ জন্তু হালাল করা হয়েছে, যা তোমাদের কাছে বিবৃত হবে তা ব্যতীত। কিন্তু এহরাম বাধাঁ অবস্থায় শিকারকে হালাল মনে করো না! নিশ্চয় আল্লাহ তা'আলা যা ইচ্ছা করেন, নির্দেশ দেন।
(সুরা মায়েদা : ১)

পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শত শত ভিডিও ক্লাস বিনামূল্যে করতে জয়েন করুন আমাদের Youtube চ্যানেলে-

www.youtube.com/c/crushschool

ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool