নিউটনের তৃতীয় সূত্র (Newton’s Third Law)

নিউটনের তৃতীয় সূত্র হচ্ছে- প্রত্যেক ক্রিয়ার একটি সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া রয়েছে। অর্থাৎ প্রত্যেক ক্রিয়ামূলক বলের একটি সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়ামূলক বল রয়েছে। এই সূত্রকে বস্তুসমূহের মধ্যে বলের পারস্পরিক ক্রিয়ার…

নিউটনের প্রথম সূত্রের ব্যাখ্যা: জড়তা ও বল (Explanation of Newton’s First Law: Inertia and Force)

নিউটনের প্রথম সূত্র থেকে দুটি বিষয়ে ধারণা পাওয়া যায়- ১. জড়তা এবং ২. বল জড়তা (Inertia) নিউটনের প্রথম সূত্র থেকে আমরা দেখতে পাই প্রত্যেক বস্তুই যে অবস্থায় আছে সেই অবস্থায়…

নিউটনের গতিসূত্র কি কি?

১৬৮৭ সালে স্যার আইজ্যাক নিউটন তার অমর গ্রন্থ "ফিলোসোফিয়া ন্যাচারালিস প্রিন্সিপিয়া ম্যাথম্যাটিকা" তে বস্তুর ভর, গতি ও বলের মধ্যে সম্পর্ক স্থাপন করে তিনটি সূত্র প্রকাশ করেন। এ সূত্র তিনটি নিউটনের…