শ্রেণীবিন্যাসের এককসমূহ (Units of Classification)

বিভিন্ন একক ব্যবহার করে শ্রেণীবিন্যাস করা হয়। যেমন- প্রজাতি, গণ, গোত্র ইত্যাদি হল শ্রেণীবিন্যাসের কতিপয় একক। নিচে ICBN স্বীকৃত প্রধান ৭টি এককের নাম ও উদাহরণ দেওয়া হল-

১। উদ্ভিদজগৎ (Plant kingdom) – Plantae

২। বিভাগ (Division) – Magnoliophyta

৩। শ্রেণী (Class) – Magnoliopsida

উপশ্রেণী (Sub class) – Magnoliidae

৪। বর্গ (Order) – Urticales

৫। গোত্র (Family) – Moraceae

৬। গণ (Genus) – Artocarpus

৭। প্রজাতি (Species) – A heterophyllus Lamk.

নামকরণের নীতিমালা অনুযায়ী শ্রেণীবিন্যাসের প্রধান একক বা স্তর সাতটি। প্রয়োজন হলে একক বৃদ্ধি করা যেতে পারে। কোন প্রধান এককের নিচে নতুন এককের প্রয়োজন হলে প্রধান এককের পরে উপ (sub) যোগ করতে হবে, যেমন- উপশ্রেণী। উদ্ভিদ শ্রেণীবিন্যাসের সর্বোচ্চ একক উদ্ভিদ জগৎ এবং সর্বনিম্ন মৌলিক একক প্রজাতি।

শ্রেণীবিন্যাসের যে কোন একককে বলা হয় ট্যাক্সন (Taxon), বহু বচনে বলা হয় ট্যাক্সা (Taxa)। এবার আমরা শ্রেণিবিন্যাসের প্রতিটা ধাপকে নিয়ে বিস্তারিত জানবো-

প্রজাতি (Species) : প্রজাতি হল শ্রেণীবিন্যাসের মৌলিক একক (basic unit of classification) যা দ্বিপদী নামের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। সাধারণভাবে প্রজাতি বলতে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যে সর্বাধিক মিলসম্পন্ন একদল জীবকে বোঝায় যারা নিজেদের মধ্যে মিলনে উর্বর সন্তান উৎপাদনে করতে পারব। অর্থাৎ প্রজাতিদের মাঝে শারীরিক সম্পর্ক হয়। যেমন- আমাদের দেশে চাষকৃত সকল প্রকার ধান একই প্রজাতির (Oryza sativa L.) অন্তর্ভুক্ত। সব ধরনের কাঁঠাল একই প্রজাতির অন্তর্ভুক্ত। আবার আমরা যারা মানুষ তারাও একই প্রজাতির। প্রয়োজন হলে প্রজাতিকে উপপ্রজাতি (sub species), প্রকরণ (variety) ইত্যাদি নিম্নস্তরে ভাগ করা যায়।

গণ (Genus) : এক বা পরস্পর নিকট সম্পর্কযুক্ত একাধিক প্রজাতির সমন্বয়ে গঠিত হয় এক একটি গণ। Artocarpus heterophyllus (কাঁঠাল), A. chaplasha (চাপালিশ), A. lacucha (ডেওয়া, ডেওফল) ইত্যাদি নিকট সম্পর্কযুক্ত প্রজাতিসমূহের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে Artocarpus গণ। এদের মধ্যে মিল হল (i) গাছে দুধের ন্যায় কস, (ii) একলিঙ্গ ফুল, (iii) পুংকেশর ১টি, (iv) ডিম্বক ঝুলন্ত থাকে। গণ শ্রেণীবিন্যাসের দ্বিতীয় স্তর, প্রজাতির উপরই এর অবস্থান। প্রয়োজন হলে গণ স্তরকে উপগণ, সেকশন, সিরিজ ইত্যাদি নিম্নস্তরে বিভক্ত করা যেতে পারে।

গোত্র (Family) : এক বা পরস্পর নিকট সম্পর্কযুক্ত একাধিক গণ নিয়ে গঠিত হয় এক একটি গোত্র। Artocarpus, Ficus, Morus ইত্যাদি গণ নিয়ে গঠিত হয়েছে Moruceae গোত্র। গোত্র শ্রেণীবিন্যাসের তৃতীয় স্তর, গণের উপরই এর অবস্থান, প্রয়োজন হলে গোত্রকে উপগোত্রে বিভক্ত করা যায়।

একইভাবে এক বা একাধিক নিকট সম্পর্কযুক্ত গোত্র নিয়ে একটি বর্গ, একাধিক বর্গ নিয়ে একটি শ্রেণী (শ্রেণীকে প্রয়োজনে উপশ্রেণী ও অধিবর্গে বিভক্ত করা যায়), একাধিক শ্রেণী নিয়ে একটি বিভাগ এবং একাধিক বিভাগ নিয়ে গঠিত হয় উদ্ভিদজগত।

পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শত শত ভিডিও ক্লাস বিনামূল্যে করতে জয়েন করুন আমাদের Youtube চ্যানেলে-

www.youtube.com/crushschool

ক্রাশ স্কুলের নোট গুলো পেতে চাইলে জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে-

www.facebook.com/groups/mycrushschool

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published.